Home / বাংলা নিউজ / যেকোন দুর্যোগে মানুষের পাশে আছেন প্রধানমন্ত্রী : আনোয়ার খান

যেকোন দুর্যোগে মানুষের পাশে আছেন প্রধানমন্ত্রী : আনোয়ার খান


অনলাইন ডেস্ক:

লক্ষ্মীপুর, ২৩ ফেব্রুয়ারি – লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার উত্তর ডুমুরিয়া গ্রামে আগুন লেগে ১৫টি বসতঘর ভস্মীভূত হয়েছে। এমন খবর পেয়ে সোমবার ঢাকা থেকে সড়ক পথে ক্ষতিগ্রস্ত এসব পরিবারের সহযোগিতায় ছুটে আসেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান ড. আনোয়ার হোসেন খান।

ক্ষতিগ্রস্ত এসব মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য ড. আনোয়ার হোসেন খান বলেন, যেকোন দুর্যোগে মানুষের পাশে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এসময় আগুনে পুড়ে যাওয়া ঘরগুলো সরকারি সহায়তায় পুনঃনির্মাণ করে দেয়ার ঘোষণা দেন আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান ড. আনোয়ার হোসেন খান এমপি।

আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের ধৈর্য ধরারও আহ্বান জানান তিনি।

নিঃস্ব মানুষের অসহায়ত্বের সুযোগ যেন কেউ নিতে না পারে সে বিষয়ে জেলা, উপজেলা প্রশাসন ও আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের সজাগ থাকার আহ্বান জানান আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান ড. আনোয়ার হোসেন খান এমপি।

আরও পড়ুন : পাপুলের আসনে এমপি হতে দৌড়ঝাঁপ ডজনখানেক মনোনয়নপ্রত্যাশীর

এর আগে লক্ষ্মীপুর (রামগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, গত রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার ৮নং করপাড়া ইউনিয়নের ডুমুরিয়া গ্রামে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন ও রামগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট দীর্ঘ এক ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ১৫ পরিবার।



সোমবার রাতে লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য ড. আনোয়ার হোসেন খান আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত প্রত্যেক পরিবারকে ২০ হাজার টাকা, ১০টি করে কম্বল দেন।

অন্যদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন আকন্দ ১১ হাজার করে টাকা এবং পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার এ কে এম কামরুজ্জামান ক্ষতিগ্রস্তদের হাতে ১০০টি কম্বল তুলে দেন।

এর আগে সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকালে ক্ষতিগ্রস্ত ১৫ পরিবারের পাশে থেকে শুকনো খাবার (চাল, ডাল, তেল, চিড়া, চিনি, নুডুলস) নগদ টাকা এবং কম্বল বিতরণ করেন রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাপ্তি চাকমা ও রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন।

রামগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জানান, ডুমুরিয়া মসজিদ বাড়িতে বিদ্যুতের খুঁটি থেকে ১৪টি ঘরে সংযোগ দেয়া হয়। ওই খুঁটির যেকোনো একটি সংযোগ থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন তারা।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ২৩ ফেব্রুয়ারি