৩ শিক্ষকের করোনা পজিটিভ, স্কুল বন্ধ ঘোষণা

নীলফামারী, ২৪ সেপ্টেম্বর – নীলফামারীর জলঢাকার চিড়াভিজা গোলনা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের তিন শিক্ষক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এতে ওই বিদ্যালয়টি দুই দিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিকালে বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক আহসান জাহেদ নওরজি জানান, সব শিক্ষক ও কর্মচারীদের নমুনা পরীক্ষার জন্য আগামী শনিবার ও রবিবার দুই দিন সংরক্ষিত ছুটি থেকে বিদ্যালয়টি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। শিক্ষক ও কর্মচারীরা টিকার প্রথম ডোজ ও দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন। আক্রান্ত তিন শিক্ষক নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

তবে অভিভাবকদের অভিযোগ, আমরাতো স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও বিধি মোতাবেক সন্তানদের স্কুলে পাঠাই। কিন্তু শিক্ষকরাই বিধি মেনে চলেন না। আমরা দেখতে পাই, স্কুলের শিক্ষকরা মাস্ক ছাড়াই হাটবাজারে ঘুরে বেড়ান। তারা নিজেরা অসচেতন হলে শিশুরা কীভাবে সচেতন হবে। বিষয়টা বুঝে আসে না।

অভিভাবক জয়নাল মোল্লার অভিযোগ, ‘শিক্ষকদের কারণে সন্তানরা ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। এখন বাধ্য হয়ে শিশুদেরও করোনা পরীক্ষা করাতে হবে।’

জলঢাকা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা চঞ্চল কুমার ভৌমিক জানান, ওই বিদ্যালয়ের যে তিন জন শিক্ষক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন তারা হলেন- সুশান্ত কুমার রায় (২৮), আব্দুল জলিল (৫০) ও রামিজুল ইসলাম (৪৮)।

তিনি আরও বলেন, ‘এই তিন শিক্ষকের মধ্যে বুধবার সুশান্ত কুমারের শরীরে করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা দিলে তিনি ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেনের মাধ্যমে নমুনা পরীক্ষা করান। সেখানে পজিটিভ আসে। পরদিন বাকি দুই শিক্ষক আব্দুল জলিল ও রামিজুল ইসলাম অসুস্থ্যবোধ করলে তারাও গত বৃহস্পতিবার ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা পরীক্ষা করালে তাদেরও পজিটিভ আসে।’

এ শিক্ষা কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আপাতত আগামী দুই কার্যদিবসের জন্য সংরক্ষিত ছুটি থেকে বিদ্যালয়টি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সেখানকার অর্ধেক শিক্ষক এখনও করোনা পরীক্ষা করেননি। তাদের জরুরি ভিত্তিতে পরীক্ষা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যদি আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যায় তাহলে উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন
এম ইউ/২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১