প্রথম স্তরে সাইফ-মজিদের শতক; বিজয়ের অর্ধশতক

চলমান জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) দ্বিতীয় রাউন্ডে প্রথম স্তরে ঢাকা বিভাগের ব্যাটারদের রাজত্বের দিনে খুলনা-সিলেট ম্যাচে রাজত্ব করেছেন বোলাররা। শতক হাঁকিয়েছেন ঢাকার আব্দুল মজিদ ও সাইফ হাসান।

সাইফ হাসান

ঢাকা বনাম রংপুর : সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মাঠে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নামে ঢাকা বিভাগ। দুই ওপেনার মজিদ ও রনি তালুকদার ঢাকাকে দারুণ শুরু এনে দেন। তাদের উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৮৬ রান। ভালো শুরু করলেও ইনিংস বড় করতে ব্যর্থ হওয়া রনি ৭০ বলে ৩৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন।

Advertisment

দ্বিতীয় উইকেটে ১১৮ রানের জুটি গড়েন মজিদ ও সাইফ। শতক হাঁকিয়ে মজিদ সাজঘরে ফিরলে ভেঙে যায় এই জুটি। মাঠ ছাড়ার আগে মজিদ করেন ১১০ রান। তার ১৮৮ বলের ইনিংসটি সাজানো ছিল ১০টি চার ও ৩টি ছক্কায়।

শতক হাঁকান সাইফও। প্রথম দিন শেষে তিনি অপরাজিত আছেন ১০২ রানে। খেলেছেন ১৮৫ বল। তার উইলো থেকে এসেছে ৮টি চার ও ২টি ছক্কা। রকিবুল হাসান ৫২ বলে ১৯ রান করে নাসির হোসেনের বলে বোল্ড হন। সাইফের সাথে ক্রিজে অপরাজিত আছেন তাইবুর রহমান।

দিনশেষে ৯০ ওভারে ঢাকা বিভাগ সংগ্রহ করেছে ৩ উইকেটে ২৯৩ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ঢাকা বিভাগ ২৯৩/৩ (২০ ওভার)
মজিদ ১১০, সাইফ ১০২*, রনি ৩৯;
নাসির ১/২৬, মাহমুদুল ১/৩৩, তানভীর হায়দার ১/৪৮।

এনামুল হক বিজয়

খুলনা বনাম সিলেট : সিলেট একাডেমি মাঠে মুখোমুখি হয় খুলনা ও সিলেট বিভাগ। এখানে রাজত্ব করেছেন বোলাররা। টস হেরে আগে ব্যাট করতে নামে খুলনা। রানের খাতা খোলার আগেই তানজিম হাসান সাকিবের বলে বোল্ড হন ইমরানউজ্জামান। দ্বিতীয় উইকেটে ৬৬ রানের জুটি গড়েন এনামুল হক বিজয় ও ইমরুল কায়েস। ইমরুল ফেরেন ৫৬ বলে ৩১ রান করে।

খুলনার মিডল অর্ডারে তুষার ইমরান ৫ বলে ১ রান, মোহাম্মদ মিঠুন ২৬ বলে ৬ রান ও মেহেদী হাসান মিরাজ ৪ বলে ১ রান করে বিদায় নেন। ৯৫ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর জিয়াউর রহমানকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন বিজয়। ১৪৩ বলে ৫৫ রানের ধৈর্যশীল ইনিংস খেলে বিজয় বোল্ড হন রেজাউর রহমান রাজার বলে।

জিয়ার ৪৪ বলে ৩৯ রান, নাহিদুল ইসলামের ৬০ বলে ২৮ রান ও রায়হান উদ্দিনের ৩০ বলে ১৯ রানের সুবাদে খুলনা জড়ো করে ১৯৬ রান।

সিলেটের পক্ষে রাজা তিনটি, সাকিব, এবাদত হোসেন ও এনামুল হক জুনিয়র দুইটি করে এবং শাহানুর রহমান একটি উইকেট শিকার করেন।

দিনের শেষ সেশনে ১৮ ওভার ব্যাট করে সিলেট। ৩ উইকেটে ৩০ রান নিয়ে দিন শেষ করেছে দলটি। খুলনার পক্ষে মিরাজ দুইটি ও আল আমিন হোসেন একটি উইকেট নিয়েছেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

খুলনা ১৯৬/১০ (৬৫ ওভার)
বিজয় ৫৫, জিয়া ৩৯, ইমরুল ৩১, নাহিদুল ২৮;
রাজা ৩/৩১, সাকিব ২/২৭, এবাদত ২/৩২, এনামুল ২/৭৬।

সিলেট ৩০/৩ (১৮ ওভার)
জাকির ১২*, গালিব ১২;
মিরাজ ২/১৩, আল আমিন ১/৭।

খুলনা ১৬৬ রানে এগিয়ে।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

সূত্র: বিডিক্রিকটাইম