শিক্ষকদের ধোঁকা দিয়ে ৫ পরীক্ষার্থীর মুঠোফোন নিয়ে গেল ভুয়া পরিদর্শক |

রাজবাড়ী সরকারি কলেজের ডিউটিরত শিক্ষকদের বোকা বানিয়ে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা চলাকালীন সময় ৫ জন পরীক্ষার্থীর মুঠোফোন নিয়ে চম্পট দিয়েছে ভুয়া এক পরিদর্শক।

জানা যায়, আজ শুক্রবার সকালে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএর ইসলামিক স্টাডিজ-১ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ১১২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৭৮ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

রাজবাড়ী সরকারি কলেজের অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় রাজবাড়ী সরকারি কলেজ পরীক্ষা কমিটির আহ্বায়ক মোস্তফা কামাল জানান, ওই পরীক্ষা চলাকালীন গলায় শিক্ষামন্ত্রণালয়ের কার্ড ঝুলানো একজন ব্যক্তি কলেজে আসেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি সে সময় পরিদর্শক হিসেবে এসেছেন বলে পরিচয় দেন। একই সাথে তিনি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

তিনি আরো জানান, কলেজের একটি রুমে ৩ জন শিক্ষক কক্ষ পরিদর্শক হিসেবে ছিলেন। ওই রুমে গিয়ে আগত ওই ব্যক্তি দীর্ঘ সময় অবস্থান করেন। তিনি টেবিলে থাকা শিক্ষার্থীদের মুঠোফোন সুকৌশলে পকেটস্থ করেন। পরে তিনি অন্য কলেজ পরিদর্শন করবেন বলে বিদায় নিয়ে চলে যান।

মোস্তফা কামাল জানান, পরীক্ষা শেষে ৫ জন পরীক্ষার্থী এসে তাকে জানান, তাদের ৫টি মুঠোফোন টেবিলে ছিল।  যা নিয়ে ওই পরিদর্শক পালিয়ে গেছেন। বিষয়টি জানার সাথে সাথে তিনি বিভিন্ন কেন্দ্রে খোঁজ নেন, তবে সেখানে কোনো পরিদর্শক নেই বলে জানতে পারেন। যে কারণে তিনি ফোন খোয়া যাওয়া পরীক্ষার্থীদের রাজবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করার পরামর্শ প্রদান করেন।

তিনি বলেন, ‘আগত ওই ব্যক্তি অত্যন্ত কৌশলী। জেলার সব কেন্দ্রের পরীক্ষার তথ্যসহ এ পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্যাদি তার কাছে ছিল এবং অত্যন্ত মার্জিতভাবে তিনি সবার সাথে কথাবার্তা বলেছেন। যে কারণে ওই ব্যক্তি যে একজন প্রতারক তা তারা কেউ বুঝতে পারেননি। ‘

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, রাজবাড়ী জেলা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাজবাড়ীর কেন্দ্র পরিদর্শনে মন্ত্রণালয় অথবা বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কেউ যাননি।


-Kalerkantho