ভারতের উড়িষ্যায় তৃতীয় রুশ নাগরিকের দেহ উদ্ধার |

ভারতের উড়িষ্যায় আরেকজন রুশ নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। ১৫ দিনের মধ্যে এ নিয়ে উড়িষ্যায় তিন জন রুশ নাগরিকের অস্বাভাবিক মৃত্যু হলো।  

পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার জগতসিংহপুর জেলার পারাদ্বীপ বন্দরে নোঙর করা একটি জাহাজে ওই রুশ নাগরিকের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত রুশ নাগরিকের নাম মিলিয়াকভ সের্গেই (৫১)।

বিজ্ঞাপন

 

পুলিশ আরো জানিয়েছে, ‘এম বি আলডনাহ’ জাহাজের প্রধান প্রকৌশলী ছিলেন মিলিয়াকভ। জাহাজটি বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বন্দর থেকে পারাদ্বীপ হয়ে মুম্বাই যাচ্ছিল। মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে জাহাজের একটি কক্ষে তাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। পুলিশ এখনো মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত করতে পারেনি।

পারাদ্বীপ পোর্ট ট্রাস্টের চেয়ারম্যান পিএল হরানন্দ ওই রুশ প্রকৌশলীর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে জানিয়েছেন পুরো বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।

গত বছরের ডিসেম্বরের শেষে উড়িষ্যার রায়গড়া শহরে এক জন রাজনীতিকসহ দুই রুশ নাগরিকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়। ২৪ ডিসেম্বর একটি হোটেলের তিন তলা থেকে পড়ে মৃত্যু হয় রাশিয়ার রাজনৈতিক পাভেল আন্তভ (৬৫)-এর।  

তার আগে ২২ ডিসেম্বর পাভেলের বন্ধু ভ্লাদিমির বিদেনভ (৬১)-এর মরদেহ উদ্ধার হয়েছিল হোটেলের কামরা থেকে। উভয় ঘটনার ব্যাপারে তদন্ত করছে উড়িষ্যা পুলিশ।  

অ্যান্টভ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরোধী ও রাশিয়ার আইনসভার সদস্য। একই হোটেলে দুই রুশ নাগরিকের মৃত্যুর ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছিল। বিশেষ করে ওই দুই রুশ নাগরিকের মধ্যে একজন পুতিনের সমালোচক হওয়ায় রহস্য আরো ঘনীভূত হয়। তার মধ্যেই উড়িষ্যায় আরেক রুশ নাগরিকের মৃত্যুতে ক্রমেই পরিস্থিতি আরো জটিল হচ্ছে।
সূত্র: এনডিটিভি।


-Kalerkantho