বিশ্বব্যবস্থায় পরিবর্তন: ইউরোপকে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান ভারতের |

ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণ এবং চীনের ক্রমবর্ধমান প্রভাবে বদলে যাওয়া বিশ্বব্যবস্থায় ইউরোপের ‘চুপ থাকার’ প্রতি ইঙ্গিত করে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর ইউরোপীয় দেশগুলোকে সক্রিয় হয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

অস্ট্রিয়ার প্রকাশনা ডাই প্রেসকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে এস জয়শঙ্কর বলেন, ‘ইউরোপীয়দের বুঝতে হবে জীবনের জটিল বিষয়গুলোর সমাধানে সব সময় অন্যরা এগিয়ে আসে না। ’ কোনো একক শক্তি আধিপত্য বিস্তার করলে বিশ্বের কোনো অঞ্চলে স্থিতিশীলতা থাকে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সাক্ষাত্কারের এক পর্যায়ে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বব্যবস্থা এখনো পশ্চিমমুখী।

বিজ্ঞাপন

একে বহুমাত্রিকতায় পরিবর্তন করা দরকার, যেখানে দেশগুলো নিজস্ব নীতি, পছন্দ ও স্বার্থ বেছে নেবে। ’

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, ‘ইউরোপ তার নিজ বলয়ের মধ্যে থেকে উন্নতি করতে চায়। তারা আন্তর্জাতিক সমস্যাগুলো থেকে নিজেদের যতটা সম্ভব দূরে রাখতে চেয়েছে। ইউরোপ জটিল নিরাপত্তা ইস্যুগুলোতে জড়াতে চায় না। ’ ২০০৮ সালের মন্দায়ও ইউরোপ রক্ষণশীল অবস্থান নিয়েছিল বলে মন্তব্য করেন এস জয়শঙ্কর।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বিপজ্জনক সময়ে বাস করছি। নতুন বিশ্বব্যবস্থায় রূপান্তর অনেক সময় নেবে। মার্কিনরা সবচেয়ে দ্রুত বুঝতে পেরেছিল, তাদের নিজেদের অবস্থান পরিবর্তন করতে হবে এবং আমাদের মতো দেশগুলোর সহযোগিতা চাইতে হবে। ’

জয়শংকর বলেন, ‘ইউরোপীয়রা ইউক্রেন সংঘাতের আগেই বুঝতে পেরেছিল যে বিশ্বব্যবস্থা পরিবর্তিত হচ্ছে। যখন ইউরোপীয়রা একটি ইন্দো-প্যাসিফিক কৌশল নিয়ে কথা বলতে শুরু করেছিল, তখনই আমার কাছে এটা পরিষ্কার হয়ে যায় যে তারা আর বিশ্বের অন্যান্য অংশের ঘটনার নিছক দর্শক হতে চায় না। ’

নিজের দেশের উদাহরণ টেনে এস জয়শঙ্কর বলেন, ইউক্রেন হামলার নিন্দা জানানোর বিষয়ে দিল্লি জাতিসংঘে মার্কিন ও ইউরোপীয়দের চাপ প্রত্যাখ্যান করেছে। এ ছাড়া ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর থেকেই পশ্চিমাদের কথিত ভণ্ডামিকেও প্রত্যাখ্যান করেছে। সূত্র : এনডিটিভি

 


-Kalerkantho