সংসার সুখের হয় বিছানার গুণে

সংসার সুখের হয় বিছানার গুণে

লাইফস্টাইল ডেক্স: ‘সংসার সুখের হয় রমণীর গুণে। তবে সংসার সুখীর জন্য শুধু রমনী নয়, এর জন্য দরকার সুন্দর বিছানাও। সুন্দর বিছানাই আপনাকে পরিপূর্ণভাবে সুখী করতে পারে। দিনের তিন ভাগের এক ভাগ সময় কাটে ঘুমিয়ে। ঘুমানোর জায়গাটি যদি হয় পরিপাটি, গোছানো তাহলে ঘুমটাও যেন জমিয়ে আসে। শুধু আরামদায়ক হলেই হবে না, বিছানার ওপর বিছানো কাপড়টিও যেন টান টান সুন্দর থাকে, নজর দিন সেদিকেও। আপনি যেখানে ঘুমাবেন সেই ঘুমানোর জায়গা যদি ভালো না হয় তাহলে ঘুমের অসুবিধা হওয়াটা স্বাভাবিক। তাই আরামদায়ক ঘুমের জন্য ভালো বিছানা দরকার। ভালো বিছানা শুধু ভালো ঘুমই উপহার দেয় না। বরং ভালো বিছানা আপনার দাম্পত্য জীবন সুখী করে তুলে। বিছানা যদি মনের মতো হয়, তাহলে একঘেঁয়েমি দুর হয়। সেই সঙ্গে আপনার সঙ্গীকেও পাবেন নিজের মনের মতো করে। সুন্দর বিছানা আপনার সঙ্গীকে নতুনভাবে নতুনরুপে পেতে সহায়ক হিসেবে কাজ করে। ভালো বিছানা পেতে করণীয়:  আরামদায়ক বিছানার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো তোশক বা ম্যাট্রেসটি ভালো হওয়া। কেননা তোশক ভালো না হলে ঘুম তো ভালো হবেই না, সেই সঙ্গে পিঠে-কোমরে ব্যথাও হতে পারে। এই ম্যাট্রেস বা তোশক যেহেতু ধোয়া যায় না তাই এর আলাদা কভার বানিয়ে নেওয়া যেতে পারে। যেটি পরে খুলে ধুয়ে নেওয়া যায়। এরপর আসে বিছানার চাদর। সাধারণত বাড়ির রং এবং জানালার পর্দার সঙ্গে মিলিয়ে বিছানার চাদর বিছানো হয়। হালকা রঙের চাদরই চোখে আর মনে প্রশান্তি এনে দেয়। কিন্তু বাড়িতে যদি ছোট শিশু থাকে তবে গাঢ় রঙের বড় প্রিন্টের চাদর ব্যবহার করলে কোনো দাগ পড়লে তা দেখা যাবে না। চাদরটি হতে হবে খাটের মাপমতো।