কেন মনে থাকে না স্বপ্ন ?

কেন মনে থাকে না স্বপ্ন ?

লাইফস্টাইল ডেস্ক:  আমরা রাতে ঘুমিয়ে স্বপ্ন দেখি। কেউ ভালো স্বপ্ন, কেউ আবার দুঃস্বপ্ন। অনেক সময়ে স্বপ্ন দেখে ঘুমের মধ্যেই জেগে উঠি, চমকে যাই। কিন্তু আমরা সকালে ঘুম ভেঙে উঠে সেই স্বপ্ন আর মনে রাখতে পারিনা, হাজার চেষ্টা করেও না। কেন মনে থাকে না স্বপ্ন আর কীভাবে মনে রাকা সম্ভব তা নিয়ে থাকছে আজকের আলোচনা-আমরা জীবনের এক তৃতীয়াংশ সময় ঘুমিয়ে কাটাই। আর সেই সময়ের ২৫ শতাংশ আমরা স্বপ্ন দেখি। মূলত আমরা ঘুমের আরইএম (Rapid Eye Movement) স্টেজে স্বপ্ন দেখি। এই পর্যায়ে আমাদের চোখ শুধু নড়াচড়া করে, শরীরের বাকি অংশ স্থির থাকে। শরীরের বাকি অংশ স্থির থাকে বলেই আমরা যখন স্বপ্ন দেখি তখন আমাদের শরীর কোনো প্রতিক্রিয়া করে না। এমনটা না হলে ঘুমের মধ্যেই হয়ত আমরা স্বপ্নের মধ্যেই দৌঁড়াদৌঁড়ি করে দিতে পারি। তবে আমরা যে সবসময় আরইএম স্টেজেই স্বপ্ন দেখি, তা নয়। আরইএম স্টেজের মনে রাখার ক্ষমতা কম থাকে তাই আমরা এই সময়ে দেখা স্বপ্ন ভুলে যাই।

কারণ মানুষের মাথা কিছুটা কম্পিউটারের মতো কাজ করে। কোনটা মনে রাখতে হবে আর কোনটা ভুলে যেতে হবে তা নিজেই বেছে নেয়। স্বপ্নের ক্ষেত্রেও এরকম হয়। এই মনে রাখা এবং ভুলে যাওয়ার বিষয়টা নির্ভর করে আলফা ওয়েভের ওপর। যারা স্বপ্ন কম মনে রাখতে পারে তাদের ওয়েভগুলো বাকিদের তুলনায় উঁচু হয়।

কীভাবে মনে রাখবেন স্বপ্ন-অনেক সময় এমনটা হয়েই থাকে, স্বপ্ন দেখার সময়ই বুঝতে পারেন যে আপনি স্বপ্নই দেখছেন, এটা বাস্তবে ঘটছে না। এমন স্বপ্নের কিন্তু অনেক উপকার আছে। কারণ যদি আমরা নিজেদের স্বপ্নকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারি তাহলে তা বাস্তবে আরও ভালভাবে কাজে লাগানো সম্ভব। যেমন, স্বপ্ন মনে রাখলে দুঃস্বপ্ন থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। নানা সমস্যার সমাধান খুঁজে পাওয়াও সম্ভব। গবেষণা বলছে, স্বপ্ন মনে রাখা সম্ভব। সেক্ষেত্রে ঘুমোতে যাওয়ার আগে ভিটামিন বি৬ ট্যাবলেট খেলে রাতের স্বপ্ন সকালে উঠে ভালোভাবেই মনে রাখতে পারবেন। এটা পরীক্ষিত। এই ওষুধ কোনোরকম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই স্বপ্ন মনে রাখতে সাহায্য করে। তা ঘুমের ব্যাঘাতও ঘটায় না। তবে শুধুই ওষুধ নয়, নানা ধরনের ফল যেমন কলায় এই ভিটামিন রয়েছে। আবার শিম, আলু, শাকজাতীয় খাবারেও রয়েছে ভিটামিন বি৬। এছাড়া দুধ, চিজ, ডিম, রেড মিট, লিভার এবং মাছ নিয়মিত খেলেও শরীরে ভিটামিন বি৬ প্রবেশ করবে।